ইমরান খানের খবর প্রকাশে সেনাবাহিনীর নিষেধাজ্ঞা পাকিস্তানে

ইমরান খানের খবর প্রকাশে সেনাবাহিনীর নিষেধাজ্ঞা পাকিস্তানে

সমঝোতা করবেন না ইমরান খানঃ ছাড়বেন না পাকিস্তানওঃ পারবেন কি সামনের নির্বাচনে অংশ নিতে?

ইমরান খানের খবর প্রকাশে সেনাবাহিনীর নিষেধাজ্ঞা পাকিস্তানে

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খানকে নিষিদ্ধ করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। সম্প্রতি গণমাধ্যম মালিকদের এক গোপন বৈঠকে ডেকে এই নির্দেশ দেওয়ার পর দেশের অধিকাংশ টিভি ও সংবাদপত্র থেকে ইমরান খানের খবর উধাও হয়ে যায়।

ইমরান খান গত বছর অনাস্থা ভোটে প্রধানমন্ত্রীত্ব হারানোর পর থেকে প্রায় প্রতিদিনই দেশটির গণমাধ্যমে শিরোনাম হচ্ছেন।৯ মে তাকে গ্রেপ্তার করার পর, তার সমর্থকরা দেশজুড়ে সহিংসতা ছড়িয়ে দেয়। ফলে ইমরান খান ও তার দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) খবর আরও ছড়িয়ে পড়তে থাকে।

পিটিআই নেতা বাবর আওয়ান দাবি করেছেন, এই সপ্তাহে ইসলামাবাদে গোপন বৈঠক হয়েছে। সভায় উপস্থিতি বাধ্যতামূলক ছিল। এতে সরাসরি ইমরান খানের সব ধরনের খবর বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়।

বাবর জানান, একাধিক সাংবাদিক তাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সেনাবাহিনী অবশ্য এ বিষয়ে লিখিতভাবে কোনো স্পষ্ট নির্দেশ দেয়নি। কিন্তু দেশটির ইলেকট্রনিক মিডিয়া রেগুলেটরি অথরিটি তখন একটি আদেশ জারি করে। এটি বলে যে ‘বিদ্বেষী, দাঙ্গাবাজ, তাদের মদদদাতা এবং অপরাধীদের’ কভারেজ দেওয়া যাবে না।

নির্দেশনায় সরাসরি ইমরান খানের নাম না থাকলেও এর অর্থ স্পষ্ট বলে মনে করছেন সাংবাদিকরা।

এদিকে, ইসলামাবাদের একটি আদালত ইমরান খানকে গ্রেপ্তারের পর সহিংসতার পরে গ্রেপ্তার হওয়া বেশিরভাগ সমর্থককে মুক্তি দিয়েছে। পিটিআই নেতা আলী আওয়ান দাবি করেছেন, ৩৪টি মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার ৭১৬ জনের মধ্যে ৬৯১ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X