স্কুলের গেট ভেঙে মায়ের সামনেই ৪ বছরের শিশুর মৃত্যু

স্কুলের গেট ভেঙে মায়ের সামনেই ৪ বছরের শিশুর মৃত্যু

স্কুলের গেট ভেঙে মায়ের সামনেই ৪ বছরের শিশুর মৃত্যু

স্কুলের গেট ভেঙে মায়ের সামনেই ৪ বছরের শিশুর মৃত্যু

স্বাধীনতার এত বছর পরেও সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর বিশেষ করে প্রাইমারি সহকারে বেশিরভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর বেহাল দশা কেন কাটছে না সে জবাব হয়তোবা অজানাই রয়ে যাচ্ছে। সেটার জবাব আসুক আর না আসুক, যে হারিয়েছে বা যারা হারিয়েছে তারাই কেবল মাত্র বুঝে হারানোর বেদনা। কথার মারপ্যাঁচে দুনিয়া থেকে হয়তোবা বেঁচে গেলেও , আগত সেদিন থেকে বাঁচার কোন উপায় থাকবেনা; সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের  আর দেশের সর্বোচ্চ পাবলিক  হর্তাকর্তাদের।

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গেট ভেঙে মুনতাহা আক্তার (৪) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার পুটিমারী ইউনিয়নের ভেড়ভেরী মাঝাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মুনতাহা আক্তার উপজেলার ভেড়ভেরী হাজির হাট এলাকার মজনু মিয়ার মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সকালে মুনতাহা আক্তারের মা স্কুলের পাশে ধান শুকাতে যান। শিশুটিও মায়ের সঙ্গে সেখানে যায়। হঠাৎ স্কুলের গেট ভেঙে শিশুটির ওপর পড়ে। এতে সে গুরুতর আহত হয় । স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল হাই জানান, নিজ উদ্যোগে গেট মেরামতের জন্য রাজমিস্ত্রি ঠিক  করা হয়েছে। আজ গেট মেরামতের কথাও হয়েছে। কিন্তু তার আগেই ঘটে গেল দুর্ঘটনা।

কিশোরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজীব কুমার রায় জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ময়নাতদন্তের পর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। কেউ অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X