দুর্নীতিগ্রস্ত এফবিআই ও বিচার বিভাগের এসব অভিযোগ নির্বাচনে হস্তক্ষেপ,ট্রাম্প

দুর্নীতিগ্রস্ত এফবিআই ও বিচার বিভাগের এসব অভিযোগ নির্বাচনে হস্তক্ষেপ,ট্রাম্প

দুর্নীতিগ্রস্ত এফবিআই ও বিচার বিভাগের এসব অভিযোগ নির্বাচনে হস্তক্ষেপ,ট্রাম্প

দুর্নীতিগ্রস্ত এফবিআই ও বিচার বিভাগের এসব অভিযোগ নির্বাচনে হস্তক্ষেপ,ট্রাম্প

জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত রাষ্ট্রীয় গোপন নথিপত্র অনুমোদন ছাড়াই ফ্লোরিডায় তার বাড়িতে নিয়ে অরক্ষিত স্থানে ফেলে রাখার জন্য তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযুক্ত করার পর শনিবার দুটো নির্বাচনী সভায় মার্কিন বিচার  প্রশাসনকে  কঠোর ভাষায় গালমন্দ করেছেন ট্রাম্প।

শুক্রবার দাখিল করা চার্জশিটে অভিযোগ করা হয়েছে যে তিনি সংবেদনশীল সরকারী নথিতে কারচুপি করে এবং ঘটনার তদন্তে বাধা দিয়ে জাতীয় নিরাপত্তাকে বিপন্ন করেছেন। তবে ট্রাম্প বলেছেন, তার বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগ একেবারেই ‘হাস্যকর’ ও ‘ভিত্তিহীন’। ট্রাম্প মার্কিন বিচার বিভাগ এবং কেন্দ্রীয় কার্যালয়কে কঠোর ভাষায় আক্রমণ করেছেন। তিনি বলেন, ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ এফবিআই ও বিচার বিভাগের এসব অভিযোগ ‘নির্বাচনে হস্তক্ষেপ’।

ট্রাম্প ২০২৪ সালের নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়ন চাইছেন এবং তিনি সামনের দৌড়ে রয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে গোপন মার্কিন পারমাণবিক অস্ত্র এবং সামরিক পরিকল্পনা সহ সংবেদনশীল নথিগুলি ফ্লোরিডার বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার এবং বাথরুম এবং বলরুমের মতো অরক্ষিত জায়গায় রেখে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। এই প্রথম কোনো প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে ফেডারেল সরকার বিচার করছে। তবে শনিবার ট্রাম্প বলেছেন, তিনি কোনো অপরাধ করেননি।

শনিবার জর্জিয়া ও নর্থ ক্যারোলিনায় এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে বক্তব্য রাখেন তিনি। এ সময় ট্রাম্প বলেন, ‘বন্দুক নিয়ে এফবিআই এজেন্টরা মার-আর-লাগোতে তল্লাশি চালায়। জর্জিয়া রাজ্যে রিপাবলিকান পার্টির কনভেনশনে ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি বলেন, “তারা প্রতারণা করছে, তারা প্রতারক, তারা দুর্নীতিবাজ – এই অপরাধীদের কোনোভাবেই ছাড় দেয়া যাবে না, তাদের অবশ্যই হারিয়ে যেতে হবে।” ট্রাম্প বলার চেষ্টা করেছিলেন যে বাই ডেন প্রশাসন তাকে রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করার চেষ্টা করেছে।

তিনি তার বিরুদ্ধে দায়ের করা অভিযোগগুলিকে “একটি দুর্নীতিবাজ রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানের প্রতারণা” হিসাবে বর্ণনা করেছেন এবং বলেন যে, এই অভিযোগগুলি “হাস্যকর”। তিনি তার সমর্থকদের যারা সভায় যোগ দিয়েছিলেন তাদের “দেশপ্রেমিক” বলে অভিনন্দন জানিয়েছেন এবং বলেছে ন যে , “দুষ্ট শক্তি” এখন দেশ চালাচ্ছে। তার মেয়াদকে “সবচেয়ে সফল সময়” হিসেবে দাবি করে তিনি বলেন, “আমরা বর্তমান শাসকদের রাজনৈতিক ক্ষমতার বিরুদ্ধে দাঁড়াব। আমরা যা শুরু করেছি তা শেষ করব।” জনতা ‘ইউএসএ, ইউএসএ’ বলে স্লোগান দেয়। ট্রাম্প বলেন, ‘আমি কখনোই হাল ছাড়ব না, পিছু হটব না।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X