ফিলিস্তিনিদের খাদ্য সহায়তা বন্ধ করে দিয়েছে জাতিসংঘ

ফিলিস্তিনিদের খাদ্য সহায়তা বন্ধ করে দিয়েছে জাতিসংঘ

ফিলিস্তিনিদের খাদ্য সহায়তা বন্ধ করে দিয়েছে জাতিসংঘ

ফিলিস্তিনিদের খাদ্য সহায়তা বন্ধ করে দিয়েছে জাতিসংঘ

গাজার ৮০ শতাংশ মানুষ সম্পূর্ণভাবে আন্তর্জাতিক সাহায্যের ওপর নির্ভরশীল

জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (ডব্লিউএফপি) আগামী মাস থেকে২০০,০০০ ফিলিস্তিনিদের জন্য খাদ্য সহায়তা বন্ধ করে দিচ্ছে। সংস্থাটি বলেছে যে তাদের কাছে ফিলিস্তিনে খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম চালানোর জন্য পর্যাপ্ত তহবিল নেই। তাই এ কার্যক্রম বন্ধ রাখা হচ্ছে।

ফিলিস্তিনের জন্য ডব্লিউএফপির কান্ট্রি ডিরেক্টর সামের আবদেলজাবের রোববার (৭ মে) এ কথা বলেন।

সামের আবদেলজাবের বলেন, ডব্লিউএফপি অর্থের তীব্র সংকটে রয়েছে। তাই সীমিত সম্পদ ব্যবহার করে এমন বেদনাদায়ক সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হচ্ছে সংগঠনটি। জুন থেকে শুরু হওয়া খাদ্য সহায়তা থেকে২০০,০০০ ফিলিস্তিনিদের বিচ্ছিন্ন করা হবে। এই সংখ্যাটি ডব্লিউএফপি থেকে সহায়তা প্রাপ্ত ফিলিস্তিনিদের ৬০ শতাংশ।

গাজা ও পশ্চিম তীরে বসবাসকারী ফিলিস্তিনিরা জাতিসংঘের এই ধরনের উদ্যোগে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে। কারণ, এসব জায়গায় দরিদ্র মানুষের সংখ্যাই বেশি। খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে ঝুঁকি ও উদ্বেগও  রয়েছে সেখানে।

ফিলিস্তিনিদের জন্য ডব্লিউএফপির দুই ধরনের সাহায্য প্যাকেজ রয়েছে। একটিতে, প্রতিটি ফিলিস্তিনিকে প্রতি মাসে $১০.৩০ মূল্যের খাদ্য ভাউচার দেওয়া হয়। আরেকটি খাদ্য ঝুড়ি দ্বারা সাহায্য করা হয়. বাজেট-স্বল্পতায়  সহায়তা কর্মসূচি এখন সীমিত হলে অনেক ফিলিস্তিনি এই দুই ধরনের প্যাকেজ থেকে বঞ্চিত হবে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X