বিরিয়ানি নিয়ে ঝামেলা, নিউইয়র্কে বাংলাদেশি রেস্তোরাঁয় আগুন লাগিয়ে দিল মাতাল

বিরিয়ানি নিয়ে ঝামেলা, নিউইয়র্কে বাংলাদেশি রেস্তোরাঁয় আগুন লাগিয়ে দিল মাতাল

বিরিয়ানি নিয়ে ঝামেলা, নিউইয়র্কে বাংলাদেশি রেস্তোরাঁয় আগুন লাগিয়ে দিল মাতাল

 

বিরিয়ানি নিয়ে ঝামেলা, নিউইয়র্কে বাংলাদেশি রেস্তোরাঁয় আগুন লাগিয়ে দিল মাতাল

অনুরোধ করলেও চিকেন বিরিয়ানি দেয়নি রেস্তোরাঁ। সেই ক্ষোভে পুরো রেস্তোরাঁয় আগুন ধরিয়ে দেয় মাতাল। নিউইয়র্কের একটি বাংলাদেশি রেস্তোরাঁয় এই অপরাধ করার জন্য চোফেল নরবু নামে ৪৯ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নিউইয়র্ক পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই ব্যক্তি দাবি করেছেন যে তিনি নেশা ও রাগের বশবর্তী হয়ে এমনটি করেছেন।

নিউইয়র্ক পুলিশ জানায়, সোমবার কুইন্সের জ্যাকসন হাইটস এলাকায় ‘ইতাদি গার্ডেন অ্যান্ড গ্রিল’ নামের রেস্তোরাঁয় যান নরবু। তিনি সেখানে চিকেন বিরিয়ানির অর্ডার দেন। অভিযোগ, তার বদলে অন্য খাবার দেওয়া হয়। তা নিয়ে অনেক বিভ্রান্তি ছিল, নরবুর সঙ্গে রেস্তোরাঁর কর্মীরা দুর্ব্যবহার করেন। নোরবু চলে যায়, রাগে বকবক করে।

তখনও কেউ জানত না, পরের দিন অর্থাৎ মঙ্গলবার রেস্তোরাঁ বন্ধ হওয়ার পর রাতের অন্ধকারে নরবু সেখানে হাজির হবে। কিন্তু এবার তার কাছে দাহ্য তরলের সিলিন্ডার! তিনি তা ঢেলে রেস্টুরেন্টে আগুন ধরিয়ে দেন। প্রচণ্ড বিস্ফোরণ হয়। পুরো ঘটনাটি ধরা পড়ে সিসিটিভি ক্যামেরায়। এদিকে ধরা পড়ার পর নরবু বলে, আমি খুব মাতাল ছিলাম। চিকেন বিরিয়ানি খেতে চাইলাম। তারা আমাকে তা দেয়নি। আমার মাথায় আগুন ছিল, আমি সেখান থেকে বেরিয়ে এলাম। পরের দিন সেই রেস্তোরাঁয় আগুন ধরিয়ে দিলাম। রাগের কারণে এ ঘটনা ঘটে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X