প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যকে ব্যঙ্গ করে ফেসবুকে পোস্ট, থানায় অভিযোগ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যকে ব্যঙ্গ করে ফেসবুকে পোস্ট, থানায় অভিযোগ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যকে ব্যঙ্গ করে ফেসবুকে পোস্ট, থানায় অভিযোগ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যকে ব্যঙ্গ করে ফেসবুকে পোস্ট, থানায় অভিযোগ

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় এসএম মামুন তালুকদার (৩০) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার বক্তব্যকে ব্যঙ্গ করার অভিযোগ উঠেছে। রাসেল মোল্যা বাঁধন নামে এক আওয়ামী লীগ নেতা ওই যুবকের বিরুদ্ধে কোটালীপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

তদন্ত সাপেক্ষে এসএম মামুন তালুকদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এস এম মামুন তালুকদার উপজেলার ভুতরিয়া (মল্যা বাজার) গ্রামের বাসিন্দা।

জানা গেছে, গত ৩ জুন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বক্তব্য রাখেন। এ সময় তিনি বলেন,  আটলান্টিক মহাসাগর পেরিয়ে ২০ ঘন্টার ফ্লাইটে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কেউ না গেলে কিছু যায় আসে না।

প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। একই দিন এস এম মামুন তালুকদার তার ফেসবুক আইডি থেকে ব্যঙ্গাত্মকভাবে এই বক্তব্য প্রচার করেন। প্রচারের পর স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের নজরে এলে রাধাগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক রাসেল মোল্যা বাঁধন বাদী হয়ে কোটালীপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

আওয়ামী লীগ নেতা রাসেল মলিয়া বাঁধন বলেন, “ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যকে ব্যঙ্গ করে দল হিসেবে আমাদের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে বলে আমি মনে করি। বিষয়টি আমাদের নজরে আসার পর গত বৃহস্পতিবার আমি এসএম মামুন তালুকদারের বিরুদ্ধে কোটালীপাড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করি।  আমরা দলীয়ভাবে এস এম মামুন তালুকদারের শাস্তি দাবি করছি।

এ বিষয়ে তার বক্তব্য জানতে এসএম মামুন তালুকদারের বাড়িতে গেলেও তাকে পাওয়া যায়নি। তার মোবাইল ফোনও বন্ধ রয়েছে। তবে তার বাবা ফজলুল হক তালুকদার বলেন, “আমার ছেলে পাঁচ বছর ধরে ঢাকায় থাকে। এ সময় সে কখনো বাড়িতে আসেনি। ফেসবুকে সে কী লিখেছে তাও আমরা জানি না।

কোটালীপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিকাইল হোসেন জানান, আওয়ামী লীগ নেতা রাসেল মোল্যা বাঁধনের অভিযোগের তদন্ত চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X