ফিলাডেলফিয়ায় ভিনদেশী ভাড়াটিয়ার হাতে বাংলাদেশী বাড়িওয়ালা খুন, হত্যাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

ফিলাডেলফিয়ায় ভিনদেশী ভাড়াটিয়ার হাতে বাংলাদেশী বাড়িওয়ালা খুন, হত্যাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

ফিলাডেলফিয়ায় ভিনদেশী ভাড়াটিয়ার হাতে বাংলাদেশী বাড়িওয়ালা খুন, হত্যাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ
ফিলাডেলফিয়ায় ভিনদেশী ভাড়াটিয়ার হাতে বাংলাদেশী বাড়িওয়ালা খুন, হত্যাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

পেনসিলভেনিয়ার ফিলাডেলফিয়া শহরে ভিনদেশী ভাড়াটিয়ার হাতুড়ির আঘাতে মারা গেছেন এক বাংলাদেশী বাড়িওয়ালা। নিহত বাড়িওয়ালার নাম মো. একরামুল হক। তার বয়স আনুমানিক ৫৫ বছর। একরামুল হকের দেশের বাড়ি চট্রগ্রাম শহরের হামজারবাগ এলাকায়। শনিবার দিবাগত রাত ১টায় ফিলাডেলফিয়া শহরের ৫৫৩৩ এনগোরা ট্রেস এ নিজ বাসায় খুন হন একরাম। পেশায় তিনি ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। এবং ফেলাডেলফিয়া এয়ারপোর্টে কাজ করতেন।

প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, বছর খানেক আগে এনগোরা ট্রেস এ একটি তিন বেডরুমের বাড়ি কিনে সেখানে বসবাস শুরু করেন একরাম। তার বাড়িতে হন্ডুরাসের বংশোদ্ভ’ত কার্লোস ও ডেভিড নামের অপর এক কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকান ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করতেন। গত ৩ মাস ধরে কার্লোস বাসা ভাড়া দিচ্ছিলেন না। শনিবার রাত ১টায় কাজ থেকে ফিরে একরামুল হক কার্লুস এর কাছে ভাড়ার টাকা চাইতে গেলে সে ক্ষিপ্ত হয়ে একটি হাতুড়ি দিয়ে একরামের মাথায় উপুর্যুপুরী আঘাত করে । এক পর্যায়ে একরাম নিস্তেজ হয়ে বাসার মেঝেতে লুটিয়ে পড়েন। সারারাত ঘরের মেঝেতেই একরামের নিথর দেহ পড়ে থাকে। এদিকে, সকাল ৭টায় ৯১১ এ কল পেয়ে পুলিশ সে বাড়িতে গিয়ে একরামের মৃতদেহ উদ্ধার করে। এসময় বাসার অন্য কক্ষ থেকে হত্যাকারী কার্লুসকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে ঘটনার সময় কার্লুস অতিরিক্ত মদ্যপ ছিলো এবং একরামকে খুন করে তার কক্ষে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে।

নিহত একরামুল হক ২০০০ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের ফিলাডেলফিয়া শহরে একা বসবাস করে আসছিলেন। তার পরিবার বাংলাদেশে থাকেন। একরামুল হকের মরদেহ ফিলাডেলফিয়া সিটি কাস্টোডিতে রাখা হয়েছে। চট্রগ্রাম সমিতি অব পেনসিলভেনিয়া তার মরদেহ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় প্রবাসীরা।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X