June 19, 2024

Warning: Undefined array key "tv_link" in /home/admin/web/timetvusa.com/public_html/wp-content/themes/time-tv/template-parts/header/mobile-topbar.php on line 53
এই প্রথম নিজের স্ত্রী সম্পর্কে মুখ খুললেন ট্রাম্প

এই প্রথম নিজের স্ত্রী সম্পর্কে মুখ খুললেন ট্রাম্প

এই প্রথম নিজের স্ত্রী সম্পর্কে মুখ খুললেন ট্রাম্প

এই প্রথম নিজের স্ত্রী সম্পর্কে মুখ খুললেন ট্রাম্প

একের পর এক ধাক্কা খেয়েও দিব্যি শক্ত মনোবলে অটল সাবেক মার্কিন এই সাহসী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে হ্যাঁ তিনি এবারই প্রথম তার স্ত্রীকে নিয়ে মুখ খুললেন, কথা বললেন। ট্রাম্প আদালতের এই রায় মেনে নেওয়া তার পক্ষে খুবই কঠিন। সে খারাপ সময়ে আছে। দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর প্রথমবারের মতো তার স্ত্রী মেলানিয়াকে নিয়ে মুখ খুললেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত সপ্তাহে, একটি জুরি ট্রাম্পকে২০১৬ সালের রাষ্ট্রপতি প্রচারের সময় ব্যবসায়িক রেকর্ড ঢাকতে এবং মিথ্যা বলার জন্য এবং  প্রাক্তন পর্ন লেডি স্টর্মি ড্যানিয়েলকে ঘুষ দেওয়ার জন্য দোষী সাব্যস্ত করে। এই রায়ের ফলে তিনি প্রথম মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন। তবে ট্রাম্প বারবার বিচার প্রক্রিয়াকে কারচুপি এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে অভিহিত করেছেন।

সপ্তাহান্তে ফক্স নিউজের সাথে একটি সাক্ষাত্কারে, ট্রাম্প প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে আগামী নভেম্বরের মার্কিন নির্বাচনে সাফল্যই হবে তার “প্রতিশোধ”। সেই রায়কে সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ করেছেন ট্রাম্প। এই পুরো বিষয়টি নিয়ে প্রাক্তন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়ার কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। বিচার চলাকালে মেলানিয়াকে আদালতে দেখা যায়নি। তিনি তার স্বামীর সাথে ছিলেন না। ট্রাম্প দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পরও তিনি নীরব কেন? সমালোচনা শুরু হলে কার্যত স্ত্রীর সামনে ঢাল হয়ে যান ডোনাল্ড ট্রাম্প। গণমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘এটা তার জন্য খুবই কঠিন।

আমার পরিবারের পক্ষে এটা মেনে নেওয়া কঠিন। জেলে যেতে আমার আপত্তি নেই। কিন্তু এই ঘটনা আমার জন্য যতটা অভিশাপ, ততটা আমার পরিবারের জন্য দুর্যোগের।

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে জর্জিয়ার একটি সহ ডজন ডজন অভিযোগ রয়েছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে জর্জিয়ায় ২০২০ সালের নির্বাচনের সময় নির্বাচনী ষড়যন্ত্রের অভিযোগও রয়েছে। ফ্লোরিডায় শ্রেণীবদ্ধ নথির অপব্যবহারের অভিযোগে ফেডারেল মামলার মুখোমুখি হয়েছেন ট্রাম্প।

দোষী সাব্যস্ত ট্রাম্প, কত সম্পদ হারালেন?

নিউইয়র্কের একটি আদালত ট্রাম্পকে ৩৪টি ফৌজদারি অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করেছে

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর দিনে বিলিয়ন ডলার হারান

ছয় মাসের শুনানির পর নিউইয়র্কের আদালত সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ফৌজদারি মামলায় দোষী সাব্যস্ত করেছে। যদিও ডোনাল্ড ট্রাম্পই যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হিসেবে ফৌজদারি অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন।

গত বৃহস্পতিবার নিউইয়র্ক আদালতের জুরি ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করেন। একটি ১২ সদস্যের জুরি ফৌজদারি মামলায় ট্রাম্পকে ৩৪টি মামলাতেই দোষী সাব্যস্ত করেছেন। অন্যদিকে এসব মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ার একদিন পর বিপুল পরিমাণ সম্পদ হারিয়েছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

শুক্রবার তার মিডিয়া কোম্পানির শেয়ারের দাম কমে যাওয়ায়  চিন্তায় পড়েন  তিনি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান জানায় ডোনাল্ড ট্রাম্প মূলত কাগজে কলমে সম্পদ হারিয়েছেন। , শুক্রবার শেষে ট্রাম্প মিডিয়া অ্যান্ড টেকনোলজি গ্রুপের শেয়ারদর ৫ দশমিক ৩ শতাংশ কমেছে। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির কোম্পানিতে সবচেয়ে বেশি শেয়ার থাকায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তিনি।

শেয়ারবাজারে লেনদেনের পর ওই কোম্পানিতে ট্রাম্পের শেয়ারের মূল্য দাঁড়ায় সাড়ে ৫ বিলিয়ন ডলার। মাত্র একদিন আগেও ওই শেয়ারের দাম ছিল প্রায় ৬ বিলিয়ন ডলার। অর্থাৎ একদিনে মূল্য কমেছে প্রায় চার কোটি ডলার।

ট্রাম্প মিডিয়ার অর্থায়ন এখনও সফলতার মুখ দেখেনি। চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে এই কোম্পানির লোকসান ২১ মিলিয়ন ডলার থেকে বেড়ে দাঁড়ায় ৩২৮ মিলিয়ন ডলারে। এ সময়ে কোম্পানিটির আয় কমেছে ৭ লাখ ৭০ হাজার ৫০০ ডলার।

এদিকে গত বৃহস্পতিবার নাসডাক শেয়ারবাজার বন্ধে ট্রাম্প মিডিয়ায় তার শেয়ারের দাম ছিল ৫ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলার। কিন্তু গতকাল একপর্যায়ে তার শেয়ারের দাম দাঁড়িয়েছে ৫৫০ মিলিয়ন ডলারে। পরে দাম কিছুটা বাড়ে।

তবে ট্রাম্প মিডিয়ার শেয়ারের দাম ওঠানামা করেছে। তবে আগামী সেপ্টেম্বরের আগে শেয়ার বিক্রি করতে পারবেন না সাবেক রাষ্ট্রপতি। কারণ এই শেয়ারগুলি লক-আপ চুক্তি সাপেক্ষে হয়েছিল।

এখন ডোনাল্ড ট্রাম্প তার মিডিয়া কোম্পানির শেয়ার বিক্রি থেকে শত শত বিলিয়ন ডলার আয় করতে চাইলে শেয়ারের দাম আবার আগের পর্যায়ে যেতে হবে। তাহলেই হয়তোবা বড় ধরনের আর্থিক লোকসান থেকে বেঁচে যাবেন এই ধনকুবের সাবেক প্রেসিডেন্ট।

 আরও পড়তে

আদেশ অমান্য করলে ট্রাম্পকে কারাগারে পাঠানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিচারক

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X