June 19, 2024

Warning: Undefined array key "tv_link" in /home/admin/web/timetvusa.com/public_html/wp-content/themes/time-tv/template-parts/header/mobile-topbar.php on line 53
গাজা যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবে জাতিসংঘে ভোটের আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

গাজা যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবে জাতিসংঘে ভোটের আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

গাজা যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবে জাতিসংঘে ভোটের আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

গাজা যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবে জাতিসংঘে ভোটের আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

গাজায় ফিলিস্তিনি যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ভোটের আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। জাতিসংঘে মার্কিন মিশনের মুখপাত্র নেট ইভান্স রবিবার নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাবের পক্ষে একটি খসড়া জমা দিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র তিন দফা যুদ্ধবিরতির বিষয়টি উত্থাপন করে এই ভোট গ্রহণের ঘোষণা দেয়। এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইসরায়েলকে তিন দফা যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবের কথা জানান।

মার্কিন মুখপাত্র ইভান্স বলেছেন, “আমরা বারবার অবিলম্বে যুদ্ধবিরতি, জিম্মিদের মুক্তি এবং গাজা থেকে ইসরায়েলি সেনাদের প্রাথমিক প্রত্যাহারের বিষয়ে জোর দিয়েছি।” এটি গাজায় মানবিক প্রবেশাধিকারের উপর অবিলম্বে অবরোধ তুলে নেওয়া এবং মৌলিক পরিষেবাগুলি পুনরুদ্ধারের উপর জোর পেয়েছে ।

অন্যদিকে, এই  মুখপাত্র উত্তর গাজার বেসামরিক নাগরিকদের তাদের ঘরে ফিরে যাওয়ার ওপরও জোর দিয়েছেন। তিনি বলেন, আমরা ইসরাইলকে এসব বিষয়ে অবহিত করেছি। আমরা হামাসকেও একই আহ্বান জানাতে চাই।

জাতিসংঘের একটি সূত্র জানিয়েছে, মার্কিন প্রস্তাবটি আগামী সপ্তাহের প্রথম দিকে নিরাপত্তা পরিষদের আলোচ্যসূচিতে রাখা হতে পারে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৭ অক্টোবর হামাসের নজিরবিহীন হামলার পর ইসরাইল গাজায় অমানবিক হামলা শুরু করে। তারা গত আট মাসে ৩৭,০০০ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে। এছাড়া ইসরায়েলি হামলায় এ পর্যন্ত ৮৪ হাজার ৫০০ ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন। জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, নিহতদের অধিকাংশই নারী ও শিশু।

দক্ষিণ আফ্রিকাসহ ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশ আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিজে) ইসরায়েলের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। এর মধ্যে রয়েছে স্পেন ও নেদারল্যান্ডস। এমতাবস্থায় আদালত ইসরাইলকে রাফাহ হামলা বন্ধের নির্দেশ দেয়। কিন্তু আদালতের নির্দেশ না মেনেই গাজায় হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরাইল।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে পেশ করা একটি খসড়া প্রস্তাবের ওপর ভোটের আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। খসড়ায় হামাসকে প্রস্তাবিত যুদ্ধবিরতি চুক্তি মেনে নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন সোমবার মিসর ও ইসরায়েলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

ব্লিঙ্কেন কায়রোতে মিশরের রাষ্ট্রপতি আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসির সাথে বৈঠক করছেন এবং পরে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্টের সাথে বৈঠকের জন্য ইসরায়েলে যাচ্ছেন।

সফরকালে কাতার ও জর্ডানেও যাবেন মার্কিন শীর্ষ কূটনীতিক। সেখানে তিনি গাজার জন্য মানবিক সহায়তা নিয়ে একটি সম্মেলনে যোগ দেবেন।

মার্কিন কর্মকর্তারা বলেছেন, ইসরাইল যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব গ্রহণ করবে। প্রস্তাবগুলোর মধ্যে রয়েছে প্রাথমিকভাবে যুদ্ধ বন্ধ, গাজা থেকে কিছু জিম্মি মুক্তি, ইসরায়েলের হাতে আটক ফিলিস্তিনি বন্দীদের মুক্তি, ফিলিস্তিনিদের জন্য মানবিক সহায়তা বৃদ্ধি, গাজার জনবহুল এলাকা থেকে ইসরায়েলি বাহিনী প্রত্যাহার এবং ফিলিস্তিনি বেসামরিক নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনা।

হামাস এই পরিকল্পনা গ্রহণ বা প্রত্যাখ্যান  কোনোটাই করেনি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এক সপ্তাহেরও বেশি আগে এই প্রস্তাবের বিস্তারিত প্রকাশ করেছেন।

মার্কিন সামরিক বাহিনী রবিবার উত্তর গাজায় মানবিক সহায়তা বিতরণ পুনরায় শুরু করেছে। প্রতিকূল আবহাওয়া এবং এলাকায় ইসরায়েলি সামরিক অভিযান মে মাসের শেষের দিকে সরবরাহ প্রক্রিয়া বন্ধ করে দেয়।

মার্কিন সামরিক বাহিনী গাজা উপত্যকায় একটি অস্থায়ী জেটির মেরামত সম্পন্ন করার ঘোষণা দেওয়ার পর এয়ারড্রপগুলি আবার শুরু হয়। সমুদ্রপথে ত্রাণ বোঝাই ট্রাক আনার দুই সপ্তাহ পর জেটিটি ধসে পড়ে।

বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির প্রধান সিন্ডি ম্যাককেইন রবিবার সিবিএসের ‘ফেস দ্য নেশন’ অনুষ্ঠানে বলেন, সংস্থাটি ঘাটে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম বন্ধ রাখছে। তিনি বলেন, তিনি “কর্মীদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন।

আরও জানুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X