স্বাস্থ্য খাতে ইরানের বিপ্লব, বছরে ১২ লাখ বিদেশীকে সেবা দিয়েছে

স্বাস্থ্য খাতে ইরানের বিপ্লব, বছরে ১২ লাখ বিদেশীকে সেবা দিয়েছে

স্বাস্থ্য খাতে ইরানের বিপ্লব, বছরে ১২ লাখ বিদেশীকে সেবা দিয়েছে

স্বাস্থ্য খাতে ইরানের বিপ্লব, বছরে ১২ লাখ বিদেশীকে সেবা দিয়েছে

১৯৭৯  সালে ইসলামী বিপ্লবের পর ইরান স্বাস্থ্য খাতে অভূতপূর্ব উন্নতি করেছে

দেশে চিকিৎসা সেবার মান এত বেশি যে গত বছর ইরানের হাসপাতালগুলোতে ১.২  মিলিয়নেরও বেশি বিদেশী নাগরিক চিকিৎসা গ্রহণ করেছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম প্রেস টিভি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, রোববার দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাহরাম আইনুল্লাহি এ তথ্য জানিয়েছেন।

তেহরানে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে এক বৈঠকে ইরানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে ইরান শুধু মধ্যপ্রাচ্য নয়, সমগ্র বিশ্বের স্বাস্থ্যসেবা খাতে শীর্ষস্থানীয় দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে।

ইরানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাহরাম আইনুল্লাহি আরো বলেন, ইরানের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সাত হাজারেরও বেশি বিদেশী শিক্ষার্থী মেডিসিন বিষয়ে  অধ্যয়ন করছে।

তিনি বলেন, গত বছর ইরানের হাসপাতালগুলোতে অন্তত ১.২ মিলিয়ন বিদেশী নাগরিক চিকিৎসা সেবা পেয়েছেন। এই রোগীদের বেশিরভাগই আফগানিস্তান, ইরাক, আজারবাইজান, পাকিস্তান, তুরস্ক, ভারত, আর্মেনিয়া এবং তুর্কমেনিস্তানের নাগরিক।

ইরানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিদেশি নাগরিকরা ইরানি চিকিৎসকদের কাছ থেকে চিকিৎসা সেবা পেয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

ইরানে যেসব রোগের উন্নত চিকিৎসা সুবিধা রয়েছে তার বিশেষ  করে স্ত্রীরোগ ও প্রসূতি, চোখের সার্জারি, অর্থোপেডিকস, কসমেটিক সার্জারি, কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ, ইউরোলজি, জেনারেল সার্জারি, ক্যান্সার এবং ট্রমা ইত্যাদি অন্যতম।

তিনি বলেন, ইরানে অত্যাধুনিক চিকিৎসা সেবা থাকা সত্ত্বেও অনেক উন্নত দেশের তুলনায় চিকিৎসার খরচ কম। এ কারণে বিদেশি রোগীরা ইরানে চিকিৎসা নিতে আসেন।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X