মায়ের স্মরণে ছেলের ‘তাজমহল’ নির্মাণ

মায়ের স্মরণে ছেলের ‘তাজমহল’ নির্মাণ

মায়ের স্মরণে ছেলের 'তাজমহল' নির্মাণ

মায়ের স্মরণে ছেলের ‘তাজমহল’ নির্মাণ

তাজমহল তৈরি করেছিলেন মুঘল সম্রাট শাহজাহান। দ্বিতীয় তাজমহল দক্ষিণ ভারতে এর আদলে নির্মিত হয়েছে । সম্রাট শাহজাহান তার স্ত্রী মমতাজের স্মরণে তাজমহল নির্মাণ করেন। তবে এবার বউ এর  ভালোবাসার জন্য নয়, মায়ের স্মৃতি রক্ষার্থে ভারতের দ্বিতীয় তাজমহল নির্মাণ করলেন তামিলনাড়ুর ব্যবসায়ী আমিরুদ্দিন শেখ দাউদ।

আমিরুদ্দিন শেখ দাউদ তামিলনাড়ুর রাজধানী চেন্নাইয়ের তিরুভারুর জেলার আম্মাইপ্পানের বাসিন্দা। তার বয়স যখন মাত্র ১১ বছর তখন তার বাবা অকালে মারা যান। এরপর থেকে তার মা আব্দুল কাদের জিলানী বিবি হার্ডওয়্যারের দোকান চালিয়ে চার মেয়ে ও এক ছেলে নিয়ে একাই সংসার চালাতেন। স্নাতক শেষ করার পর অমরউদ্দিন চেন্নাইতে নিজের ব্যবসা শুরু করেন। ২০২০ সালে মা জিলানী বিবির মৃত্যুর পর, আমিরুদ্দিন তার স্মরণে তাজমহল-স্টাইলের একটি স্মৃতিসৌধ নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেন।

অল্প বয়সে বাবাকে হারানোর পর মা আমিরুদ্দিনের সংসারে একমাত্র ভরসা। তাই তার মায়ের মৃত্যু তাকে খুব ব্যথিত করেছিল। আমিরুদ্দিন তার মায়ের মৃতদেহ তিরুবারুরে নিজের জমিতে কবর দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। একই সঙ্গে মায়ের স্মৃতিতে তাজমহলের মতো একটি স্মৃতিস্তম্ভও নির্মাণ করতে চান তিনি। তার পরিবারও তার সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছে।

তাজমহলের আদলে সৌধ নির্মাণের জন্য রাজস্থান থেকে মার্বেল ও দক্ষ শ্রমিক আনার ব্যবস্থা করেন আমিরুদ্দিন। ২০২১ সালের জুন থেকে কাজ শুরু হয়। দুই বছরের বেশি সময় ধরে স্থানীয় শ্রমিকদের সঙ্গে মিলে দুই শতাধিক মানুষ এই স্মৃতিসৌধটি তৈরি করেন। এই স্মৃতিসৌধটি এই বছরের ২রা জুন সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়।

আমিরুদ্দিন জানান, পুরো স্মৃতিসৌধে ব্যয় হয়েছে প্রায় পাঁচ কোটি টাকা। তার মা নিজেই কয়েক কোটি টাকা রেখে গেছেন। সেই টাকা খরচ করে তিনি তার মায়ের স্মরণে তাজমহলের মতো একটি স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করেন।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X