June 19, 2024

Warning: Undefined array key "tv_link" in /home/admin/web/timetvusa.com/public_html/wp-content/themes/time-tv/template-parts/header/mobile-topbar.php on line 53
বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে গভর্নরকে বর্জন সাংবাদিকদেরগালে হাত গভর্নরের

বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে গভর্নরকে বর্জন সাংবাদিকদেরগালে হাত গভর্নরের

বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে গভর্নরকে বর্জন সাংবাদিকদেরঃ গালে হাত গভর্নরের

আগামী ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার পর রীতি অনুযায়ী ওসমানী মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। সংবাদ সম্মেলনে সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী ছাড়াও বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ও এনবিআর চেয়ারম্যান উপস্থিত ছিলেন।

তবে সাংবাদিকরা গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদারকে বাদ দেওয়ার ঘোষণা দেন। এবং তারপর পুরো দুই ঘণ্টার সংবাদ সম্মেলনে গভর্নর নীরব ছিলেন। কখনো গালে হাত দিয়ে বসে থাকতে দেখা যায় আবার কখনো উদাস ভঙ্গিতে। শুক্রবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে অর্থ মন্ত্রণালয় আয়োজিত বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার সূত্রপাত কয়েকদিন আগে। বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার নিয়ে গভর্নরের সঙ্গে সাংবাদিকদের বিরোধ চলছে। এ কারণে গতকাল সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকরা গভর্নরকে বয়কট করেন।

বৃহস্পতিবার (৬ জুন) জাতীয় সংসদে আগামী ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। প্রথা অনুযায়ী ওসমানী মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সামনে বাজেট নিয়ে হাজির হন অর্থমন্ত্রী। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ শেষে প্রশ্নোত্তর পর্বে যান অর্থমন্ত্রী।

তবে প্রশ্নোত্তর পর্বের শুরুতে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের (ইআরএফ) সভাপতি মোহাম্মদ রেফায়েত উল্লাহ মির্ধা অর্থমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন গভর্নর। অতএব, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে আমরা কেউ তার বক্তৃতা শুনব না। আমি আপনার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি যে সে যেন কোনো বক্তব্য না দেয়। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ভাষণ দিলে আমরা তা বর্জন করব।

অর্থমন্ত্রী গভর্নরের দিকে তাকালে আবদুর রউফ তালুকদার কথা না বলার ইঙ্গিত দেন। এরপর গোটা সংবাদ সম্মেলনে ‘নিশ্চুপ’ গভর্নর। কখনো কখনো গালে হাত দিয়ে উদাসীন  হয়ে  বক্তৃতা শুনতে দেখা যায়। মাঝে মাঝে তাকে গভীর চিন্তায়  উপরের দিকে তাকাতেও  দেখা যায়।

অতীতে, এই সংবাদ সম্মেলনে, গভর্নরকে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে মুদ্রানীতির উদ্যোগ, সরকারী অর্থায়নে ব্যাংক ঋণ প্রদান, রিজার্ভ বৃদ্ধি, খেলাপি ঋণ হ্রাস এবং অর্থ পাচারের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দিতে দেখা গেছে। তবে সে সুযোগ আসেনি সাবেক এই  অর্থ সচিব আবদুর রউফ তালুকদারের সামনে।

গত দুই মাস ধরে বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার। এর প্রতিবাদে বাংলাদেশ ব্যাংকের সব ধরনের সংবাদ সম্মেলন বর্জন করছেন সাংবাদিকরা।

এরপর পুরো সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেননি গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার। ব্যাংকিং ও আর্থিক খাতের বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্নের উত্তর দেন অর্থমন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা মসিউর রহমান, অর্থ প্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা আয়েশা খান, অর্থ সচিব প্রমুখ। সংবাদ সম্মেলনের বেশিরভাগ সময় গভর্নরকে চুপচাপ বসে থাকতে দেখা গেছে।

অর্থ সচিব ড. মোঃ খায়রুজ্জামান মজুমদারের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী ছাড়াও ছিলেন আবুল হাসান মাহমুদ আলী, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, শিল্প মন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন, পরিকল্পনা মন্ত্রী মেজর জেনারেল (অব) আব্দুস সালাম, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর অর্থ বিষয়ক উপদেষ্টা মসিউর রহমান, কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুস শহীদ, শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, বাণিজ্যমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু, অর্থ প্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা আয়শা খান, মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।

আরও পড়ুন

অনিয়ম আড়াল করতেই বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকদের প্রবেশ নিষিদ্ধাজ্ঞা দিয়েছেঃ সাংবাদিক ফোরাম

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X