June 19, 2024

Warning: Undefined array key "tv_link" in /home/admin/web/timetvusa.com/public_html/wp-content/themes/time-tv/template-parts/header/mobile-topbar.php on line 53
সৌদিতে নতুন আইন কার্যকর, ট্যুরিস্ট ভিসায় হজে কঠোর শাস্তি

সৌদিতে নতুন আইন কার্যকর, ট্যুরিস্ট ভিসায় হজে কঠোর শাস্তি

সৌদিতে নতুন আইন কার্যকর, ট্যুরিস্ট ভিসায় হজে কঠোর শাস্তি

সৌদিতে নতুন আইন কার্যকর, ট্যুরিস্ট ভিসায় হজে কঠোর শাস্তি

নতুন আইন অনুযায়ী, অনুমতি ছাড়া হজ পালনকারীদের ১০ হাজার সৌদি রিয়াল (সাড়ে তিন লাখ টাকা) জরিমানা করা হবে। কেউ অনুমতি ছাড়া হজযাত্রীদের পরিবহন করলে তাকে ৬ মাসের কারাদণ্ড এবং ৫০,০০০ রিয়াল জরিমানা করা হবে।

পবিত্র হজ নিয়ে নতুন আইন বাস্তবায়ন করেছে সৌদি আরব সরকার। আজ (২ জুন) থেকে ২০ জুন পর্যন্ত সৌদি আরবে অবস্থানরত সবাইকে এই আইন মানতে হবে। অন্যথায় জরিমানাসহ কঠিন শাস্তি ভোগ করতে হবে।

নতুন আইন অনুযায়ী, এ বছর অনুমতি ছাড়া হজ পালনকারীদের ১০ হাজার সৌদি রিয়াল জরিমানা করা হবে, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে তিন লাখ টাকা। অনুমতি ছাড়া কেউ হজযাত্রীদের পরিবহন করলে ছয় মাসের জেল এবং ৫০ হাজার রিয়াল জরিমানা করা হবে.

সৌদি আরবে হজ আইন কার্যকর

অনুমতি ছাড়া কাউকে হজ করতে দেওয়া হবে না বলে ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। অনুমতি ছাড়া কেউ মক্কা, পবিত্র স্থান, হারামাইন ট্রেন স্টেশন, নিরাপত্তা পোস্ট, স্ক্রিনিং সেন্টার এবং অস্থায়ী চেকপয়েন্টের কাছে যেতে পারবে না।

হজ করতে প্রবাসীদেরও অনুমতি লাগবে

সৌদি আরবে বসবাসকারী প্রবাসীরা যারা অনুমতি ছাড়া হজে যাবেন তারা  আটক থাকবেন এবং  তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে এবং নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সৌদি আরবে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হবে।

এছাড়া অনুমতি ছাড়া যারা হজযাত্রী পরিবহন করবে তাদের প্রথমে কারাগারে পাঠানো হবে। সেখানে তাদের ছয় মাস আটকে রাখা হবে। এরপর তাদের দেশে ফেরত পাঠানো হবে। এই ব্যক্তিদের নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সৌদি আরবে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

ট্যুরিস্ট ভিসায় হজ করা যাবে না

সৌদি আরবের ভিজিট ভিসায় (পর্যটন ভিসা) কেউ হজ করতে পারবে না বলে স্পষ্ট করে জানিয়েছে দেশটির সরকার। যাদের ট্যুরিস্ট ভিসা রয়েছে তাদের ২ জুন থেকে ২১ জুন পর্যন্ত মক্কার বাইরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সৌদির মতে, এ পর্যন্ত ২০ হাজার মানুষকে পাওয়া গেছে, যারা হজের আইন ভঙ্গ করেছেন।

সৌদি গেজেটের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সৌদি নাগরিক, পর্যটক এবং যে কোনো উদ্দেশ্যে সৌদি আরবে অবস্থানরত ব্যক্তিরা নতুন আইনের আওতায় আসবে। তারা অনুমতি ছাড়া হজ করতে পারবে না।

গণমাধ্যমে বলা হয়, অনুমতি ছাড়া হজ পালনকারীদের চিহ্নিত করতে কর্তৃপক্ষ কাজ করবে। পবিত্র নগরীতে কাউকে পাওয়া গেলে ১০,০০০ সৌদি রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা করা হবে।

হজ ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের একটি। আর্থিক ও শারীরিকভাবে সুস্থ মুসলিম নর-নারীর জন্য জীবনে অন্তত একবার হজ করা ফরজ। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১৬ জুন পবিত্র হজের কার্যক্রম শুরু হবে। এ লক্ষ্যে ১ মার্চ থেকে হজ ভিসা ইস্যু শুরু হয়ে ২৯ এপ্রিল শেষ হয়। এরপর ৯ মে থেকে হজযাত্রীরা সৌদি আরবে আসতে শুরু করেন। এ বছর বাংলাদেশ থেকে এ পর্যন্ত ৮৩ হাজার ১৫৫ জন নিবন্ধন করেছেন। গত বছরের শুরুতে, ১.৮ মিলিয়নেরও বেশি মুসলমান করোনা-পরবর্তী বৃহত্তম হজে অংশগ্রহণ করেছিলেন। এর মধ্যে ১৬ লাখ ৬০ হাজার ৯১৫ জন বিদেশি হজযাত্রী।

আরও পড়ুন

হজ্জের যাত্রী কোটার চেয়েও অর্ধেক কমে গেছেঃ পারছেন না খরচের সাথে পাল্লা দিতে

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X