ব্যানার টানিয়ে চোরকে অনুরোধ করলেন সাবেক মেয়র

ব্যানার টানিয়ে চোরকে অনুরোধ করলেন সাবেক মেয়র

ব্যানার টানিয়ে চোরকে অনুরোধ করলেন সাবেক মেয়র

ব্যানার টানিয়ে চোরকে অনুরোধ করলেন সাবেক মেয়র

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে চোরদের বিরুদ্ধে মানবিক আবেদন সম্বলিত ব্যানার টানিয়েছেন পৌরসভার সাবেক মেয়র মো. মাহবুবুন নবী শেখ। মোহনগঞ্জ শহরের দক্ষিণ দৌলতপুর এলাকার শেখবাড়ির বাসিন্দা মাহবুবুন নবী প্রয়াত লেখক হুমায়ূন আহমেদের ছোট মামা।

বিষয়টি ফেসবুকে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। বিভিন্ন ব্যক্তি বিভিন্নভাবে ব্যানার ছবিসহ ফেসবুকে পোস্ট করছেন। একইভাবে মিজানুর রহমান নামে এক ব্যক্তি ফেসবুকে লিখেছেন, ‘সবাই হাসছে। কি করে বোঝাবো কত কষ্টের। যে ব্যক্তি এই নোটিশ পোস্ট করেছেন তিনি একজন সাবেক পৌর মেয়র। এই বাড়িটি হুমায়ূন আহমেদের বাড়ি। হুমায়ূন আহমেদের জন্ম এখানেই। মোহনগঞ্জ আমারও শহর। ঢাকা থেকে ফেসবুকে এলাকায় চুরির খবর দেখি। খারাপ লাগছে এসবের কোন সমাধান নেই?’

ব্যানারে মেয়র লিখেছেন, ‘চুরির সঙ্গে সম্পৃক্তদের সদয় অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে, আমাদের বাড়িতে চুরি করার মতো মূল্যবান কোনো সম্পদ নেই। তাই আমাদের বাড়িতে চুরির চেষ্টা করে আপনাদের মূল্যবান সময়ের অপচয়। অপরদিকে চুরির পর ঘর গোছানো আমাদের জন্য কষ্টের কাজ। ভবিষ্যতে চুরির পরিকল্পনায় বিষয়গুলি আমলে নেওয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ রইল।’

সাবেক এই মেয়র বলেন, ‘মোহনগঞ্জ শহরে চুরির ঘটনা অস্বাভাবিকভাবে বেড়েছে। চোর এতই ধূর্ত যে ক্ষণিকের জন্য ঘর থেকে বের হলেই সব চুরি করে। তালা দিয়েও চুরি ঠেকানো যাচ্ছে না। পুলিশ চোরকে ধরে আদালতে পাঠালে পরদিন সে জামিনে এসে আবার চুরি শুরু করে। আমরা চোরের কাছে অসহায়। তাই ব্যানারে লিখে চোরকে অনুরোধ করেছি।

মোহনগঞ্জ শহর ব্যবসায়ী সমিতির নেতা শ্যামল মোল্লা বলেন, কয়েক মাসের মধ্যে মার্কেটের চার-পাঁচটি দোকানে চুরি হয়েছে লাখ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে।

মোহনগঞ্জ থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, “গত কয়েক মাসে চুরির ঘটনায় অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কয়েকদিন পর তারা জামিনে এসে আবার চুরি শুরু করলে আমরা তাদের আবার গ্রেপ্তার করি। এছাড়াও বিভিন্ন এলাকায় রাতের নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। এ ব্যাপারে পুলিশ আন্তরিকভাবে কাজ করছে।চুরি ঠেকাতে জনগণকেও সতর্ক থাকতে হবে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    X